• শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:১৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম
এক শতাব্দী পর নামাজের জন্য খুলেছে গ্রিসের ঐতিহাসিক মসজিদ ইয়েনি এবং সুলেমানিও জাপানের কানসাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সাগরে ডুবে যাচ্ছে ধ্বংসাবশেষে ফিলিস্তিনিদের ঈদের নামাজ আদায় জলদস্যুদের কড়া পাহারায় নাবিকরা ঈদের নামাজ পড়েছেন জাহাজেই অভিন্ন রাজনৈতিক আশ্রয়-নীতির পথে ইউরোপীয় ইউনিয়ন চরভদ্রাসনে অভিবাসী কর্মীদের একর্তীকরন ও সচেতনা মুলক সভা অনুষ্ঠিত নারায়ণগঞ্জ কলেজ কমিটি গঠন, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন চরফ্যাশনে গুরতে আসা, দুই ভাইয়ের নানা বাড়িতে মৃত্যু ভোলায় নারী উদ্যোক্তাদের ঈদ মেলা ২০২৪ উদ্বোধন করলেন : আরিফুজ্জামান ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আমেরিকার মাটিতে বসবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের নবম আসর
বিজ্ঞপ্তি
প্রিয় পাঠক আমাদের সাইটে আপনাকে স্বাগতম এই সাইটি নতুন ভাবে করা হয়েছে। তাই ১৫ই অক্টোবর ২০২০ সাল এর আগের নিউজ গুলো দেখতে ভিজিট করুন : old.bdnewseu24.com

স্টার জলসা, স্টার প্লাসসহ ৭ চ্যানেলের প্রদর্শন বাংলাদেশে বন্ধঃ কোয়াব

বিডিনিউজ ইউরোপ বিনোদন ডেক্স
আপডেট : শুক্রবার, ৬ নভেম্বর, ২০২০

স্টার জলসা, স্টার প্লাসসহ ৭ চ্যানেলের প্রদর্শন বাংলাদেশে বন্ধঃ কোয়াব

বাংলাদেশের সামাজিক ও নৈতিক অবক্ষয়ের দিক ও স্টার গ্রুপের অনৈতিক ব্যবসায়িক কার্যক্রমের ব্যাপারে বাংলাদেশের ক্যাবল ব্যবসায়িদের পক্ষ থেকে উক্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানতে পেরেছি।

ভারতের স্টার গ্রুপের স্টার জলসা, স্টার প্লাসসহ সাতটি টেলিভিশন চ্যানেলের সম্প্রচার বাংলাদেশে বন্ধ করা হয়েছে।

স্টার গ্রুপের পাঁচ চ্যানেলের পরিবেশক জাদু ভিশনের স্বেচ্ছাচারিতার প্রতিবাদে এসব চ্যানেল বাংলাদেশে প্রদর্শন বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে ক্যাবল অপারেটর্স অব বাংলাদেশ (কোয়াব)।

এর আগে গত ২৮ অক্টোবর সংবাদ সম্মেলন করে স্টার গ্রুপের চ্যানেল বন্ধের হুমকি দিয়েছিল ক্যাবল অপারেটর্স অব বাংলাদেশ (কোয়াব)। বুধবার আনুষ্ঠানিকভাবে তারা এই পাঁচটি চ্যানেলকে অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য বয়কটের ঘোষণা দিয়েছেন।

এ নিয়ে এক বিবৃতিতে কোয়াবের প্রেসিডেন্ট এসএম আনোয়ার পারভেজ বলেন, দেশজুড়ে ক্যাবল অপারেটরদের এসব চ্যানেল প্রদর্শন না করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

কোয়াবের বিবৃতি দেয়ার পর ইতোমধ্যে অনেক ক্যাবল অপারেটর স্টার গ্রুপের চ্যানেলগুলো প্রদর্শন বন্ধ করে দিয়েছে। তিনি জাদু ভিশনের বিরুদ্ধে অপারেটরদের সঙ্গে অশোভনীয় আচরণ এবং ‘পেইড চ্যানেল’ ইচ্ছামত বিচ্ছিন্ন করে দেয়ার অভিযোগ আনেন।
বাংলাদেশের সমাজ বিজ্ঞানীদের মতে এ সব চ্যানল সমূহ স্থায়ী ভাবে বন্ধ করার সময় আসছে বলে মত দিয়েছেন।
আরো বলেন উক্ত চ্যানেলের কারণে বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠিত চ্যানেল গুলো গুরুত্ব কমে যাচ্ছে। বাংলাদেশের বিভিন্ন ব্যবসায়িরা বিদেশি চ্যানেল গুলো তে বিজ্ঞাপন দিতে গিয়ে দেশের অর্থ গুলো যেমন বিদেশে চলে যাচ্ছে তেমনি বাংলাদেশের সামাজিক ও পারিবারিক কূটনামি তৈরি হচ্ছে। তাই সরকারের উচিত এ ধরনের সকল বিদেশের চ্যানেল বন্ধ করে দেওয়ার অনুরোধ করেছেন ঐ সমাজবিজ্ঞানীরা।

বিডিনিউজ ইউরোপ /৬ নভেম্বর / বার্তা সম্পাদক


আরো বিভন্ন ধরণের নিউজ