• মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০৩:৩৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম
ঢাবির হলে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার স্বার্থে ভিসির বাসভবনের জরুরী বৈঠক হয়েছে শিক্ষার্থীদের রক্তে রক্তাক্ত ঢাবি, আহত শতাধিক ইংল্যান্ডকে হারিয়ে ইউরো ফুটবলের চ্যাম্পিয়ন স্পেন টিউশনির টাকায় রোবট তৈরি করে তাক লাগালেন লালমনিরহাটের হাবিব অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় জাঁকজমকপূর্ণ বিবাহত্তোর অনুষ্ঠান সম্পন্ন কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের নিয়ে সরকারের মন্তব্য বিদ্বেষপ্রসূত, বিভ্রান্তিকর : গণসংহতি কোটাবিরোধী আন্দোলনের যে অনুভূতি মুঠোফোনে জানালেন বাবাকে, ঢাবি ছাত্রী ভোলায় শ্যালকের পর দুলাভাই ৩৯ লক্ষ টাকার ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে চিরকুট লিখে গৃহবধূর আত্মহত্যা অস্ট্রিয়ান সরকার পারিবারিক ভিসা অত্যন্ত সূক্ষ্মভাবে পরীক্ষা করছে
বিজ্ঞপ্তি
প্রিয় পাঠক আমাদের সাইটে আপনাকে স্বাগতম এই সাইটি নতুন ভাবে করা হয়েছে। তাই ১৫ই অক্টোবর ২০২০ সাল এর আগের নিউজ গুলো দেখতে ভিজিট করুন : old.bdnewseu24.com

আমেরিকার নির্বাচন মন্তব্য ও মতামতের শেষ নেই

মাহফুজ আলম ফ্লোরিডা থেকেঃ
আপডেট : মঙ্গলবার, ৩ নভেম্বর, ২০২০

আমেরিকার নির্বাচন। এখানে মতেরও শেষ নেই মতামতেরও শেষ নেই। এবার মিঃ ট্রাম সাহেব হবেন নাকি বাইডেন সাহেব ? যখন এটা বলাই কঠিন তখন পরিচিত একজন গতকাল বিশেষ সুত্রমতে বললেন, “ডোনাল ট্রামের তৃতীয়বার ইচ্ছাকৃতভাবে নির্বাচনে থেকে যাবার পথ আছে এবং তিনি থাকবেন “।
এবার বলুন, এটা কি বাংলাদেশের পরিচিত কোন চায়ের দোকানে টেবিলে ঝড় ওঠানো খেজুরে আলাপের বিষয়? তিনি বেশ দৃঢ়তার সহিত বললেন এবং আমি তর্কে না গিয়ে নমনীয়তার সাথে একটু হেসে নিলাম। পাশাপাশি ভাব দেখালাম যেন তিনি ভাবেন আমি বিষয়টি খুবই গুরুত্বের সাথে বুঝে নিয়েছি।

এবার আসুন ঘাটাঘাটি করে কি পাই।

আমেরিকার নির্বাচন নিয়ে যদি বলি তবে ২২ তম সংশোধন পাঠ্য, ধারা ১ এ বলা হয়েছে যে,”কোনও ব্যক্তি দু’বারের বেশি রাষ্ট্রপতির পদে নির্বাচিত হবেন না এবং যে ব্যক্তি যে রাষ্ট্রপতির পদে অধিষ্ঠিত, বা রাষ্ট্রপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন, তার মেয়াদের দুই বছরের বেশি সময় ধরে যে কোনও ব্যক্তির রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন রাষ্ট্রপতি পদে একাধিকবার নির্বাচিত হবেন।”
তাহলে আমরা বুঝলাম যে দুই মেয়াদে একই রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে নির্বাচিত হতে পারেন। বেশ । কিন্তু তৃতীয়বার হবার কোন ধারা আছে কি ? তাহলে একটু পেছনে তাকাই।

১৯৪০ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে রিপাবলিকান মনোনীত প্রার্থী ওয়েন্ডেল উইলকিকে পরাজিত করে রুজভেল্ট তৃতীয় বারের জয় লাভ করেন। তিনি একমাত্র রাষ্ট্রপতি হিসাবে দু’বারের বেশি সময় দায়িত্ব পালন করেছেন।

তবে বর্তমান সংশোধনীতে বলা হয়েছে যে কোনও ব্যক্তি কেবলমাত্র মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি হিসাবে দুটি নির্বাচিত মেয়াদ সম্পাদন করতে পারেন। উদাহরণস্বরূপ, যদি কোনও রাষ্ট্রপতি তার নির্বাচিত মেয়াদের প্রথম দুই বছরের মধ্যে মারা যান, তবে সহ-রাষ্ট্রপতি সেই মেয়াদটি সম্পাদন করতে পারবেন এবং আরও দু’বার রাষ্ট্রপতির হয়ে প্রার্থী হতে পারবেন। ১৭ই জুন ২০১৯।

২০২০ সালে এখনও বেঁচে থাকা মার্কিন রাষ্ট্রপতিদের মধ্যে বিল ক্লিনটন, জর্জ ডব্লু বুশ এবং বারাক ওবামা এই সংশোধনীর কারণে আবারও নির্বাচিত হতে পারেননি। তারা সবাই দু’বার নির্বাচিত হয়েছিলেন। জিমি কার্টার এবং ডোনাল্ড ট্রাম্প (বর্তমান মার্কিন রাষ্ট্রপতি) তারা একবারই নির্বাচিত হয়েছিলেন বলে আবার রাষ্ট্রপতি পদে প্রার্থী হতে পারেন।
আর এটাই হচ্ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধানের বাইশতম সংশোধনী (নিচে রেফারেন্স উল্লেখ করছি)

Text. Section 1. No person shall be elected to the office of the President more than twice, and no person who has held the office of President, or acted as President, for more than two years of a term to which some other person was elected President shall be elected to the office of the President more than once. (22nd amendment).

এবার বলছি এ নির্বাচনে কে হবেন রাষ্ট্রপতি। দেখুন এত গণক হবার চেয়ে কয়েক ঘন্টা পরই মিডিয়াই বলে দেবে কে হবেন। অতএব ধীরে চলুন। শুধু শুধু টেবিল চাপড়ে মরে লাভ কি? আর যিনি বলেছেন অমুক হবেন কিংবা তমক হবেন তাদের বলছি। এটা আপনার মতামত প্রকাশের স্বাধীনতা । আপনের কথা আপনি বলতেই পারেন। এখানে মোট ভোটের চেয়ে ইলেক্ট্রাল ভোটই নির্বাচনের মূল কলকাঠি। যার উদাহরণ হেলারী ক্লিনটন। তিনি ঐ ইলেক্ট্রাল ভোটে পিছিয়ে কিন্তু প্রচুর ব্যাবধানে মোট ভোট বেশি পেয়েও হেরেছেন। অতএব “নো চিন্তা বৎস ডু ফুর্তি”। কয়েক ঘন্টার তর আপনাকে সইতেই হচ্ছে, তাই না?


আরো বিভন্ন ধরণের নিউজ