• শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৩১ অপরাহ্ন
শিরোনাম
এক শতাব্দী পর নামাজের জন্য খুলেছে গ্রিসের ঐতিহাসিক মসজিদ ইয়েনি এবং সুলেমানিও জাপানের কানসাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সাগরে ডুবে যাচ্ছে ধ্বংসাবশেষে ফিলিস্তিনিদের ঈদের নামাজ আদায় জলদস্যুদের কড়া পাহারায় নাবিকরা ঈদের নামাজ পড়েছেন জাহাজেই অভিন্ন রাজনৈতিক আশ্রয়-নীতির পথে ইউরোপীয় ইউনিয়ন চরভদ্রাসনে অভিবাসী কর্মীদের একর্তীকরন ও সচেতনা মুলক সভা অনুষ্ঠিত নারায়ণগঞ্জ কলেজ কমিটি গঠন, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন চরফ্যাশনে গুরতে আসা, দুই ভাইয়ের নানা বাড়িতে মৃত্যু ভোলায় নারী উদ্যোক্তাদের ঈদ মেলা ২০২৪ উদ্বোধন করলেন : আরিফুজ্জামান ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আমেরিকার মাটিতে বসবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের নবম আসর
বিজ্ঞপ্তি
প্রিয় পাঠক আমাদের সাইটে আপনাকে স্বাগতম এই সাইটি নতুন ভাবে করা হয়েছে। তাই ১৫ই অক্টোবর ২০২০ সাল এর আগের নিউজ গুলো দেখতে ভিজিট করুন : old.bdnewseu24.com

কক্সবাজারে ভেজাল ওষধের ভাগাড়ে র‍্যাব এর অভিযান সাড়ে ৪ লাখ জরিমানা

এন আলম আজাদ ককসবাজার থেকে
আপডেট : বুধবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

কক্সবাজারে ভেজাল ওষধের ভাগাড়ে র‍্যাব এর অভিযান সাড়ে ৪ লাখ জরিমানা

কক্সবাজার শহরে ভেজাল ও অনুমোদনহীন ওষুধ বিক্রির বিরুদ্ধে সাড়াঁশি অভিযানে নেমেছে র্যাব- ১৫।আজ সকাল থেকে ২ ঘন্টার অভিযানে অনুমোদনহীন ঔষধ মওজুদ ও বিক্রির দায়ে জেলা সদর হাসাপাতালের আশপাশের ৭টি ফার্মেসিকে প্রায় সাড়ে ৪ লাখ টাকা জরিমানা করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাব-১৫ এর ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট।

আজ সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আনিসুর রহমানের নেতৃত্বে একটি দল ব্যাপক অভিযোগের ভিত্তিতে গোপন সূত্রের খবরে এ অভিযান চালায়।

অভিযান চলাকালে হাসপাতাল সড়কের আর আর ফার্মেসি, রামু প্লাস, প্রেসক্রিপশন ফার্মেসীসহ আরো ৩ ওষুধ বিক্রয় প্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন প্রকার অনুমোদনহীন ও ভেজাল ঔষধ পাওয়া যায়।র্যাবের অভিযান দেখে এসব প্রতিষ্ঠানের মালিকরা নিরাপদ দুরুত্বে সরে যায়। এসব ফার্মেসী থেকে ১০ লাখ টাকা মূল্যমানের মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধও জব্দ করা হয়।এসব ঔষধ পরবর্তীতে ধ্বংস করার নির্দেশও দেয় নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট।

মেয়াদ উত্তীর্ণ এই ওষুধ সেবনে রোগীরা দীর্ঘ মেয়াদি সমস্যায় ভুগতো এমন অভিযোগও ছিল র্যাবের কাছে। এই ওষুধ বিক্রয়কে ঘিরে কক্সবাজার সদর হাসাপাতাল কেন্দ্রীক একটি সিন্ডিকেট রয়েছে বলেও নানা সূত্রের অভিযোগ। হাসাপাতালের ষ্টোর কিপার থেকে শুরু করে আরো কয়েকজন হর্তাকর্তা রয়েছে এ চক্রে।অবৈধ ঔষধ বিক্রি দমনে র্যাবের এ অভিযানকে সাধারণ মানুষ সাধুবাদ জানালেও এ কাজে জড়িত রাঘববোয়ালদের কেউ গ্রেফতার না হওয়ায় আবারও তারা সংগঠিত হয়ে তাদের এ ব্যবসা পুরোদমে শুরু করার আশংকা করছে সাধারণরা।এদিকে ওষধ প্রশাসনের এক কর্মকর্তা জানান,তাদের এমন অভিযান সর্বক্ষণ চলমান।তথ্য দিয়ে সহযোগীতা করলে অনুমোদনহীন ও ভেজাল ঔষধ বিক্রয়কারীদের শুধু জরিমানা নয় আইনের কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে এসব ফার্মেসি ও তার মালিক পক্ষের বিরুদ্ধে।এদিকে একটি সূত্র জানিয়েছে জরিমানা প্রাপ্ত প্রেসক্রিপশন ফার্মেসির মালিক এই সিন্ডিকেটর নাটেরগুরু।তিনি সদর হাসপাতালের কর্মচারী।আরো ২/১ জন হাসাপাতাল কর্তা ও কর্মচারী ও এ অবৈধ ব্যবসায় সম্পৃক্ত।সচেতন মহল বলছেন হাসাপাতাল কেন্দ্রীক অসাধু চক্রকে দমন করা না গেলে ভেজাল ও মেয়াদউত্তীর্ণ ওষধ বিক্রি কোনভাবেই রোধ করা যাবে না।অভিযান সম্পর্কে কক্সবাজার র‌্যাব-১৫ এর সহকারী পরিচালক মিডিয়া আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী বলেন,তাদের অভিযান শুধু শহরে সীমাবদ্ধ থাকবে না উপজেলা ও গ্রাম পর্যায়ে এমন ওষধ বিক্রির সাথে জড়িত ফার্মেসি গুলোকেও আইনের মাধ্যমে আনতে তাদের সর্বাত্মক চেষ্টা রয়েছে। তবে এক্ষেত্রে তিনি সচেতন জনগন ও ভুক্তভোগী রোগীদের ভুমিকাকেও অগ্রাধিকার দেন।তারা অভিযোগ করলে সহসাৎ অভিযানের মাধ্যমে আইনী পদক্ষেপ নেবেন বলে জানান র্যাবের এই মিডিয়া কর্মকর্তা।
বিডিনিউজ ইউরোপ /১৭ ফেব্রুয়ারী / জ ইসলাম


আরো বিভন্ন ধরণের নিউজ