• শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ১০:২৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
কোরআন মজিদের ৪০ আয়াতে আল্লাহ-ও রাসুলের নাম একসাথে পাশাপাশি লিখা ভোলায় মুক্তবুলি ম্যাগাজিনের প্রাণবন্ত সাহিত্য আড্ডা বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের সাহায্য করাও ইবাদত টার্মিনেটর খ্যাত সাবেক হলিউড সুপারস্টার আর্নল্ড শোয়ার্জনেগার ভিয়েনায় উত্তর কোরিয়া-রাশিয়ার পরষ্পরের প্রতিরক্ষা সুরক্ষার অঙ্গীকার চরফ্যাশনে বজ্রপাতে কৃষক নিহত চরফ্যাশন দর্শনীয় স্পটগুলোতে পর্যটকদের ঢল ইসরায়েলে নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে প্রচণ্ড বিক্ষোভ গ্রিসে উচ্চ তাপমাত্রা, শুষ্কতা এবং শক্তিশালী বাতাসের কারণে সহজে দাবানল সৃষ্টি হতে পারে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ৫০ বছরের চুক্তি নবায়নে অনিহা সৌদি আরবের
বিজ্ঞপ্তি
প্রিয় পাঠক আমাদের সাইটে আপনাকে স্বাগতম এই সাইটি নতুন ভাবে করা হয়েছে। তাই ১৫ই অক্টোবর ২০২০ সাল এর আগের নিউজ গুলো দেখতে ভিজিট করুন : old.bdnewseu24.com

অস্ট্রীয়ায় লকডাউন বাড়ানোর বিষয়ে শীঘ্রই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে

কবির আহমেদ কূটনীতিক প্রতিবেদক অস্ট্রীয়া
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০২১

আজ অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনা থেকে প্রচারিত দৈনিক Today (Heute) তাদের অনলাইন প্রকাশনায় জানিয়েছেন অস্ট্রিয়ার লকডাউন বাড়ানো হবে কিনা সে বিষয়ে সপ্তাহের শেষে সম্ভবত শনিবার ১৬ জানুয়ারী চূড়ান্ত ঘোষণা দিবেন সরকার প্রধান চ্যান্সেলর (প্রধানমন্ত্রী) সেবাস্তিয়ান কুর্জ (ÖVP)। তবে পত্রিকাটি জানিয়েছেন এর পূর্বে তিনি অস্ট্রিয়ার ৯ রাজ্যের গভর্নরদের সাথে এবং সরকারের অংশীদার দলসহ সামাজিক নেতৃবৃন্দের সাথে বৈঠক করবেন।

বেশ কয়েকদিন ধরেই ২৪ শে জানুয়ারীর পর লকডাউনের সম্ভাব্য বর্ধিতের বিষয়ে জল্পনা কল্পনা চলছে। যা সম্ভবত এপ্রিলের শুরুতে ইস্টার পর্যন্ত। এই ব্যাপারে আজ চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জ মুখ খুলেছেন বলে জানিয়েছে পত্রিকাটি। সরকার প্রধান বলেন বিভিন্ন রাজ্যের গভর্নর এবং সামাজিক অংশীদারদের সাথে আলোচনার পর সপ্তাহের শেষে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানানো হবে। অবশ্য পত্রিকাটি বলছে ইতিপূর্বে সেবাস্তিয়ান কুর্জ অস্ট্রিয়ার রাস্ট্রীয় টেলিভিশন ORF এর সংবাদ বিষয়ক অনুষ্ঠান ZIB এ বলেছেন তিনি লকডাউনটি আর বর্ধিত করতে চান না। তবে সকলকে অত্যন্ত সাবধানতার সাথে এগিয়ে যেতে বলেছেন।

তিনি আরও বলেন,বর্তমানে বৃটেনের মিউটেশন ভাইরাসের সংক্রমণ সনাক্ত ও বিস্তার বৃদ্ধির ফলে পরিস্থিতি দিনের পর দিন আরও খারাপের দিকে ধাবিত হচ্ছে। তিনি আরও বলেন,বর্তমান পরিস্থিতি সত্যিই খুবই উদ্বেগজনক। এখনও অস্ট্রিয়ায় সপ্তাহের গড় সংক্রমণ ২,০০০ হাজারের উপরে। তিনি আরও জানান করোনার দ্বিতীয় তরঙ্গে গড় সংক্রমণের প্রবনতায় অস্ট্রিয়া ইইউর মধ্যে তৃতীয় স্থানে রয়েছে।

সরকার প্রধান চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জ জনগণের উদ্দেশ্যে বলেন,”আমরা যা অর্জন করেছি তা ধ্বংস করবেন না।” কুর্জ বলেন, ব্রিটিশ মিউটেশন ভাইরাসটি আমাদের জন্য আগামী দিনগুলিতে এক বিরাট চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তিনি বলেন,জার্মানির বাভারিয়া (রাজধানী মিউনিখ) রাজ্যের মত এখানেও FFP2 মাস্ক ব্যবহারের পরিকল্পনা করা হচ্ছে। এখানে উল্লেখ্য যে,অস্ট্রিয়ার প্রতিবেশী জার্মানির এই রাজ্যে আগামী সোমবার থেকে গণপরিবহন ও সুপারমার্কেটে সকলের জন্য FFP2 মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। অস্ট্রিয়ার ওষুধের দোকানে এই মাস্ক পাওয়া যায়। দুটি মাস্কের প্যাকেটের মূল্য প্রায় €৫ ইউরো।

এদিকে অস্ট্রিয়ার চেম্বার অফ কমার্সের প্রধান হ্যারাল্ড মাহেরার আজ অস্ট্রিয়ার রেডিও Ö1- এর সকালের জার্নালে এক সাক্ষাৎকার দেশের অর্থনীতিকে ফিরিয়ে আনতে লকডাউন থেকে বেড়িয়ে আসতে সরকারকে অনুরোধ করেছেন। তিনি বলেন “আমাদের আবার লকডাউন থেকে বেরিয়ে আসতে হবে।” লকডাউন থেকে বেড়িয়ে এসে কঠোর বিধিনিষেধ ও সাবধানতার সাথে চলাফেরা করা যেতে পারে বলে তিনি তার মত প্রকাশ করেন। তিনি উদাহরণস্বরূপ বলেন, আমাদের নিকটতম প্রতিবেশী জার্মানির বাভারিয়া রাজ্যে পুনরায় ব্যবসা-বাণিজ্যে ফিরে এসেছে তবে তারা কঠোর বিধিনিষেধ এবং FFP2 মাস্ক পড়া বাধ্যতামূলক করেছে।
আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনায় সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ৩,৫১০ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৫৩ জন। আজকের এই সংক্রমণ বৃদ্ধির ফলে অস্ট্রিয়া পুনরায় ২ সপ্তাহের পিছনে ফিরে গেছে। রাজধানী ভিয়েনায় আজ নতুন করে করোনায় সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ৪০৪ জন। অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে OÖ রাজ্যে ১,০৫৬ জন,NÖ রাজ্যে ২৬৬ জন,Salzburg রাজ্যে ২১১ জন, Steiermark রাজ্যে ১৮২ জন,Vorarlberg রাজ্যে ১৩২ জন,Tirol রাজ্যে ১৩০ জন এবং Burgenland রাজ্যে ৫৬ জন নতুন করে সংক্রমিত হয়েছে।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩,৮৯,২৬০ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন মোট ৬,৯২১ জন। করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন মোট ৩,৬২,৯৩১ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১৯,৪০৮ জন। এর মধ্যে ক্রিটিক্যাল অবস্থায় আইসিইউতে আছেন ৩৬১ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ২,০৮৬ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।
বিডিনিউজ ইউরোপ /১৪ জানুয়ারি / জই


আরো বিভন্ন ধরণের নিউজ