• মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১২:১৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম
ঢাবির হলে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার স্বার্থে ভিসির বাসভবনের জরুরী বৈঠক হয়েছে শিক্ষার্থীদের রক্তে রক্তাক্ত ঢাবি, আহত শতাধিক ইংল্যান্ডকে হারিয়ে ইউরো ফুটবলের চ্যাম্পিয়ন স্পেন টিউশনির টাকায় রোবট তৈরি করে তাক লাগালেন লালমনিরহাটের হাবিব অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় জাঁকজমকপূর্ণ বিবাহত্তোর অনুষ্ঠান সম্পন্ন কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের নিয়ে সরকারের মন্তব্য বিদ্বেষপ্রসূত, বিভ্রান্তিকর : গণসংহতি কোটাবিরোধী আন্দোলনের যে অনুভূতি মুঠোফোনে জানালেন বাবাকে, ঢাবি ছাত্রী ভোলায় শ্যালকের পর দুলাভাই ৩৯ লক্ষ টাকার ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে চিরকুট লিখে গৃহবধূর আত্মহত্যা অস্ট্রিয়ান সরকার পারিবারিক ভিসা অত্যন্ত সূক্ষ্মভাবে পরীক্ষা করছে
বিজ্ঞপ্তি
প্রিয় পাঠক আমাদের সাইটে আপনাকে স্বাগতম এই সাইটি নতুন ভাবে করা হয়েছে। তাই ১৫ই অক্টোবর ২০২০ সাল এর আগের নিউজ গুলো দেখতে ভিজিট করুন : old.bdnewseu24.com

ইইউ-বৃটেনের বাণিজ্য চুক্তি তে বৃটিশ জেলেরা ক্ষুদ্ধ

কবির আহমেদ কূটনীতিক প্রতিবেদক ভিয়েনা
আপডেট : সোমবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০২০

ইইউ ও বৃটেনের মধ্যে অবাধ বাণিজ্য চুক্তিতে অসন্তুষ্ট প্রকাশ বৃটিশ জেলেদের
বৃটেনের ইউরোপী ইউনিয়ন থেকে বের হওয়ার পূর্বে ইইউ এর সাথে যে অবাধ বাণিজ্যের চুক্তি করেছেন তাতে অসন্তুষ্ট ব্রিটিশ জেলেরা। ব্রিটিশ জেলেরা অভিযোগ করেছেন যে,বৃটিশ সরকার আমাদের প্রতিশ্রুতি রাখে নি। তারা বলেন,আমাদের সমস্যা ব্রেক্সিটের পরে আরও জটিল আকার ধারণ করবে। ব্রিটিশ জেলেরা প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের ব্রেক্সিট চুক্তির দ্বারা তাদের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন।


বিবিসি রেডিওতে এক সাক্ষাৎকাররে ব্রিটিশ জাতীয় ফিশারি অর্গানাইজেশন (NFFA) এর প্রধান এন্ড্রু লকার বলেন,”বরিস জনসন আমাদের একচেটিয়া আমাদের জলসীমায় অর্থনৈতিক অঞ্চলে মাছ ধরার সমস্ত অধিকারের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল কিন্ত নতুন চুক্তিতে এখন আমাদের জলসীমার মাত্র একটি অংশে মাছ ধরার অনুমতি দেয়া হয়েছে। তিনি বলেন,ইইউ থেকে বের হয়েও আমরা আমাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছি। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে আরও বলেন, “আমি ক্রুদ্ধ, হতাশ এবং আমাদের সাথে এই চুক্তি একটী বিশ্বাসঘাতকতা বলে মনে করছি।”

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী জনসন প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যে, চুক্তির ফলে কোনও জেলেরই অবস্থা খারাপ হবে না। কিন্ত এখন দেখছি, আমাদের অধিকাংশ জেলেরা আগের চেয়ে আরও খারাপ অবস্থার সম্মুখীন হতে হবে বলে জানিয়েছেন এন্ড্রু লকার। ইইউর সাথে বৃটেনের আলোচনার মূল বিতর্কিত বিষয় হিসাবে মাছ ধরার জলসীমার বিষয়টিই ছিল সবচেয় জটিল। ইউকে যখন ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য ছিল তখন জেলেরা এই ইইউর সাথে লেনদেন করতে পারত।

অর্থনৈতিক দৃষ্টিকোণ থেকে, মাছ ধরা কেবল একটি সামান্য ভূমিকা পালন করে, তবে এটি গ্রেট ব্রিটেন এবং ফ্রান্স দ্বারা প্রতীকীভাবে ভারী চার্জ করা হয়েছিল এবং ব্রেক্সিট বাণিজ্য চুক্তির আলোচনার মধ্যে অন্যতম কঠিন বিষয় ছিল। শেষ পর্যন্ত লন্ডন চুক্তিতে ইইউকে বড় ছাড় দিয়েছে। ইইউ জেলেদের প্রাথমিকভাবে সাড়ে পাঁচ বছরের সময়কালে তাদের ধরা পড়ার কোটাগুলির এক-চতুর্থাংশ ভবিষ্যদ্বাণী করতে হয়। যুক্তরাজ্য যদি আরও অ্যাক্সেস কমিয়ে দেয় তবে ইইউ শুল্ক দিয়ে সাড়া দিতে পারে।

একজন ব্রিটিশ ব্যবসায়ী মনে করেন,শুল্ক সীমানা তার এবং তার কর্মচারীদের জন্য এখন এখ হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। তিনি বলেন,আমাদের পণ্য পথে নষ্ট হয়ে যাবে এবং শুল্কের কারণে বিক্রয় তার ব্যাপক হ্রাস প্রত্যাশা করবে এবং তাকে সম্ভবত তার সংস্থাটি বন্ধ করে দিতে হবে। তিনি আরও বলেন আমিও ব্রেক্সিটকে সমর্থন দিয়েছিলাম। তিনি বলেন,আপনি যদি বিবেচনা করেন যে ব্রিটিশ জলসীমার বেশিরভাগ মাছ যুক্তরাজ্যে নয় তবে ইউরোপে বিক্রি হয় তবে শুল্কের কারণে কোন চুক্তিই ফিশারিগুলিকে বেশি আঘাত করতে পারে। যুক্তরাজ্যের বাজারে বিক্রি হওয়া বেশীরভাগ মাছই ফ্রান্স থেকে আমদানি করা হয়ে থাকে।

আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনায় সংক্রমণ সনাক্ত হয়েছেন ১,৫৯২ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৫০ জন। রাজধানী ভিয়েনায় আজ নতুন করে সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ২৪২ জন। অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে OÖ রাজ্যে ৩২৩ জন,NÖ রাজ্যে ৩১৪ জন,Salzburg রাজ্যে ২১১ জন,Steiermark রাজ্যে ১৪০ জন,Tirol রাজ্যে ১২৮ জন,Vorarlberg রাজ্যে ১০৫ জন,Kärnten রাজ্যে ৮৫ জন এবং Burgenland রাজ্যে ৪৪ জন নতুন করে সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৩,৫৩,৪৮৪ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৫,৯৩১ জন। করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন ৩,২৬,৭৬৮ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ২০,৭৮৫ জন। এর মধ্যে আইসিইউতে আছেন ৪২১ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ২,৫১০ জন এবং বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।
বিডিনিউজ ইউরোপ /২৯ ডিসেম্বর / জই


আরো বিভন্ন ধরণের নিউজ