• বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৩:৩৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম
শেনজেন ভিসা ফি ১২শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে জুলাই থেকে কার্যকর ফিলিস্তিনকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসাবে ৩ দেশের স্বীকৃতি তেহরানে প্রয়াত প্রেসিডেন্ট রাইসির জানাজা পড়ালেন ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা ইমাম খামেনি শহরের কেন্দ্রস্থল এথেন্সের বাড়িতে আগুনে বৃদ্ধ ভাইবোন নিহত আগামীকাল বৃহস্পতিবার একাডেমিয়ার মিউনিসিপ্যালিটি মিউজিক থিয়েটারে লাইভ কনসার্ট হবে ভোলায় তিন উপজেলার নবনির্বাচিত তিন চেয়ারম্যান মালয়েশিয়ায় বিশেষ ব্যবস্থাপনায় কনস্যুলার সেবা প্রদানের উদ্যোগ হাইকমিশনের ঝালকাঠিতে উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে উপজেলা নির্বাচনে দ্বিতীয় ধাপে যারা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন রাইসির মৃত্যুতে বাংলাদেশে বৃহস্পতিবার একদিনের শোক ঘোষণা
বিজ্ঞপ্তি
প্রিয় পাঠক আমাদের সাইটে আপনাকে স্বাগতম এই সাইটি নতুন ভাবে করা হয়েছে। তাই ১৫ই অক্টোবর ২০২০ সাল এর আগের নিউজ গুলো দেখতে ভিজিট করুন : old.bdnewseu24.com

সেনাবাহিনীর সার্বিক তত্ত্বাবধানে রবিবার ২৭ ডিসেম্বর থেকে অস্ট্রিয়ায় করোনার ভ্যাকসিন প্রয়োগ

কবির আহমেদ কূটনীতিক প্রতিবেদক অষ্ট্রীয়া
আপডেট : শনিবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০২০

সেনাবাহিনীর সার্বিক তত্ত্বাবধানে রবিবার ২৭ ডিসেম্বর থেকে অস্ট্রিয়ায় করোনার ভ্যাকসিন দেয়া শুরু! অন লাইন ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ অস্ট্রিয়ান সেনাবাহিনীর বিশেষ তত্ত্বাবধানে Biontech এবং Pfizer এর করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম চালান প্রায় ১০,০০০ হাজার ডোজ ভিয়েনায় এসে পৌঁছিয়াছে। শনিবার সকালে অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনার ১১ নাম্বার ডিস্ট্রিক্টের একটি ফার্মাসিউটিক্যালে দেশের ঘরোয়া রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ দীর্ঘ প্রতীক্ষিত ভ্যাকসিনটি অস্ট্রিয়ান সেনাবাহিনীর থেকে গ্রহণ করেন। উল্লেখ্য যে,করোনার এই ভ্যাকসিন পরিবহণ, সংরক্ষণ এবং বিভিন্ন রাজ্যে বিতরণ সহ সমস্ত কিছুই অস্ট্রিয়ান সেনাবাহিনী তদারকি করবে।


শনিবার এই করোনার ভ্যাকসিন গ্রহণের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অস্ট্রিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্লাউডিয়া ট্যানার (ÖVP),NÖ রাজ্যের গভর্নর ইয়োহানা মিকল লাইটনার(ÖVP) এবং ভিয়েনা সিটি মেয়র মিখাইল লুডভিগ (SPÖ)। মাইনাস -৭০ ডিগ্রি থেকে মাইনাস -৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে সংরক্ষিত Biontech ও Pfizer এর এই ভ্যাকসিনটি এখন সেনাবাহিনী কর্তৃক ফেডারেল রাজ্যগুলিতে বিতরণ করা হবে এবং সেনারা ভ্যাকসিনের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবে। ভ্যাকসিন গ্রহণ অনুষ্ঠানে এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্লাউডিয়া ট্যানার বলেন,“আজ এবং আগামীকাল আমাদের জন্য এক ঐতিহাসিক দিন হবে। তিনি আরও বলেন,দেশের যেকোন দুর্যোগ এবং সঙ্কট মোকাবেলায় অস্ট্রিয়ান সেনাবাহিনী সদা সর্বদা প্রস্তুত। তিনি জানান,ভিয়েনার এই ১১ নাম্বার ডিস্ট্রিক্টের ফার্মাসিউটিক্যাল হার্বা কেমোসান গুদামে বিশেষ ব্যবস্থায় সংরক্ষিত এই করোনার ভ্যাকসিন সমগ্র অস্ট্রিয়ায় সেনাবাহিনীর মাধ্যমে বিতরণ করা হবে।

প্রতিরক্ষামন্ত্রী আরও বলেন,”আমি অস্ট্রিয়ান সেনাবাহিনীকে দেশের ক্রান্তিকালে এই গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব গ্রহণ করায় সেনাবাহিনীকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। তিনি বলেন অতিরিক্ত খরচ ও সংরক্ষণের বিশেষ ব্যবস্থার জন্য হেলিকপ্টারের পরিবর্তে বিশেষ ভাবে নির্মিত গাড়িতে সেনাবাহিনীর কঠোর নিরাপত্তায় বিভিন্ন রাজ্যে প্রেরণ করা হবে। অস্ট্রিয়ান সংবাদ মাধ্যমের খবর অনুযায়ী আগামী মার্চ মাসের মধ্যে অস্ট্রিয়ায় করোনার ৯ লক্ষাধিক ভ্যাকসিন ডোজ আসার কথা রয়েছে। স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমে আরও বলা হয়েছে রবিবার সকাল ৯ টায় ৫ জন সিনিয়র সিটিজেনের শরীরে ইনজেকশনের মাধ্যমে পুশ করে এই ভ্যাকসিন দানের কার্যক্রম শুরু করা হবে এবং আশা করা হচ্ছে এই কার্যক্রম কয়েক সপ্তাহ পর্যন্ত স্থায়ী হবে।

অস্ট্রিয়ান সংবাদ সংস্থা এপিএ জানিয়েছেন,আগামীকাল যে ৫ জন সিনিয়র সিটিজেনকে করোনার প্রথম ভ্যাকসিন দেয়া হচ্ছে তাদের সকলেরই বয়স ৮০ বৎসরের উপরে এবং তারা স্বেচ্ছায় এই ভ্যাকসিন গ্রহণ করছেন। অস্ট্রিয়ার প্রধান বিরোধীদল সোস্যালিস্ট পার্টি অস্ট্রিয়ার (SPÖ) চেয়ারপার্সন ডা.রেন্ডি ভাগনার সন্ধ্যায় রাস্ট্রীয় টেলিভিশন ORF এ এক সাক্ষাৎকারে দেশে করোনার প্রথম ভ্যাকসিন আসায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তিনি সকলের উদ্দেশ্যে বলেন,আমাদের সকলেরই এই ভ্যাকসিন নেয়া উচিত এবং আমি মনে করি মহামারী করোনার থেকে মুক্ত থাকার জন্য এটা আমাদের এক মহা সুযোগ। অস্ট্রিয়ার সংবাদ মাধ্যম অনুযায়ী করোনার এই ভ্যাকসিন প্রথমে বয়স্ক ও ঝুঁকিপূর্ণ গ্রুপের মানুষদের দেয়া হবে। তারপর ডাক্তার, নার্স এবং স্বাস্থ্য বিষয়ক প্রতিষ্ঠানে কর্মরত লোকজনদের দেয়া হবে। সাধারণ সুস্থ মানুষের কাছে আগামী জুন মাসের পূর্বে পৌঁছাবে বলে মনে হয় না।

এদিকে আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনায় সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ১,৪২৯ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৬০ জন। রাজধানী ভিয়েনায় আজ নতুন করে সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ৩০১ জন। অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে NÖ রাজ্যে ৩৩৪ জন,OÖ রাজ্যে ২৩৩ জন, Salzburg রাজ্যে ১৭৮ জন,Steiermark রাজ্যে ১১৬ জন,Tirol রাজ্যে ৯১ জন,Vorarlberg রাজ্যে ৬৫ জন,Kärnten রাজ্যে ৫৯ জন এবং Burgenland রাজ্যে ৫২ জন নতুন করে সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩,৫০,৪৮৪ জন এবং মোট মৃত্যুবরণ করেছেন ৫,৮৪৩ জন। করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন ৩,২০,৭৫৩ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ২৩,৮৮৮ জন। এর মধ্যে আইসিইউতে আছেন ৪৩১ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ২,৪৫৫ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।
বিডিনিউজ ইউরোপ /২৬ ডিসেম্বর / জ ই


আরো বিভন্ন ধরণের নিউজ