• সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:৩৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
লিবিয়া থেকে দেশে ফেরত পাঠিয়েছে ১৪৪ জন প্রবাসীকে গ্রিসের আবাসন সংকট নিরসনে গোল্ডেন ভিসার বিনিয়োগ বৃদ্ধির ঘোষণা গ্রিস ও বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক এবং শিক্ষা ক্ষেত্রে সহযোগিতা বিষয়ক চুক্তির অগ্রগতি নেই হাইকোর্টে প্রার্থিতা ফিরে পেলেন সাদিক আব্দুল্লাহ জার্মানির মিউনিখের ইউরোপ বিএনপির ব্যাপক বিক্ষোভ প্রদর্শন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ইইউ প্রেসিডেন্ট উরসুলার অভিনন্দন তিউনিসিয়া উপকূলে নৌকা ডুবির ঘটনায় বাংলাদেশী নিহত ৮ আহত ২৭ জীবিত উদ্ধার এলাকার উন্নয়নে প্রত্যেক সংসদ সদস্যরা পাবেন ২০ কোটি টাকা ড. মুহাম্মদ ইউনূস ও আমাদের সমাজ রাজনীতির কারণে পুতিনের শত্রুতেও পরিণত হন নাভালনি
বিজ্ঞপ্তি
প্রিয় পাঠক আমাদের সাইটে আপনাকে স্বাগতম এই সাইটি নতুন ভাবে করা হয়েছে। তাই ১৫ই অক্টোবর ২০২০ সাল এর আগের নিউজ গুলো দেখতে ভিজিট করুন : old.bdnewseu24.com

বঙ্গবন্ধু ৩৬তম জাতীয় জুনিয়র এ্যাথলেটিকসে যশোর জেলা ক্রীড়া সংস্হার স্বর্ণপদক অর্জন

মোস্তাকিম ফারুকী রাজশাহী থেকে নিজস্ব প্রতিনিধি
আপডেট : রবিবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২০

বঙ্গবন্ধু ৩৬তম জাতীয় জুনিয়র এ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতায় যশোর জেলা ক্রীড়া সংস্হার স্বর্ণপদক অর্জন

দু’দিনব্যাপী বঙ্গবন্ধু ৩৬ জাতীয় জুনিয়র এ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা উদ্বোধন করেন রেলপথ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন।
বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে চারটি গ্রুপে ৪১ টি ইভেন্টে ৬৪ জেলা, ৮টি বিভাগ ও বিভিন্ন শিক্ষাবোর্ডের প্রায় ৫শ’ বালক-বালিকার অংশ গ্রহণ করে আসরটিতে। এর মধ্যে যশোর জেলা ক্রীড়া সংস্থা ৭টি ইভেন্টে বিজয়ী হয় এবং ৩টি তে স্বর্ণপদক লাভ করেন।

যশোর জেলার এমন অর্জনে উচ্ছ্বসিত এলাকাবাসী এবং এই অর্জনের সকল অবদান যশোরের কৃতি সন্তান লাইয় ইঞ্জিনিয়ার মোস্তুফা কামালের বলে দাবী করেন। যশোর জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক বলেন, ফান্ড এবং পৃষ্ঠপোষকতার অভাবে যশোরের খেলাধূলা প্রায় মৃত ছিল। এমন সংকট মুহূর্তে লায়ন ইঞ্জিনিয়ার মোস্তুফা কামাল আমাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে এবং খেলোয়াড় সহ আমাদের অনুপ্রাণিত করেছে অনুশীলনের ব্যাপারে।
পুরুষ্কার বিতরনী অনুষ্ঠান শেষে ইঞ্জিনিয়ার মোস্তুফা কামাল বলেন, আমি ব্যাক্তিগতভাবে ছোট বেলায় প্রচুর খেলাধুলা করতাম এবং স্কুল ফুটবল টিমের ক্যাপ্টেন ছিলাম।
তিনি আরও বলেন, দেশের সব শ্রেণী-পেশার মানুষকে খেলাধুলার মান উন্নয়নে এগিয়ে আসতে হবে। শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলারও সুযোগ করে দিতে হবে। বাচ্চারা আজকাল অনলাইন খেলাধুলার প্রতি খুব আসক্ত হয়ে যাচ্ছে, যা তাদের মস্তিষ্কে বিরুপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করছে এবং স্বাভাবিক চিন্তাচেতনা থেকে দুরে সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। এসব অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য নতুন প্রজন্মকে মাঠে নিয়ে আসতে হবে, গুরুত্ব দিতে হবে খেলাধূলাকে। তবেই আগামী দিনে আমরা সুস্থ্য ও মেধাসম্পন্ন একটি জাতি উপহার পাব। আধুনিক, নিরাপদ ও মাদক মুক্ত সমাজ এবং দেশ গড়তে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে, তবেই আমরা এগিয়ে যেতে পারব।
বিডিনিউজ ইউরোপ/২৯ নভেম্বর/ জই


আরো বিভন্ন ধরণের নিউজ